কমিটিবিহীন এম.সি কলেজ ছাত্রলীগের ৮ বছর

বার্তা ডেস্কঃ ছাত্র রাজনীতির অন্যতম প্রাণকেন্দ্র ঐতিহ্যবাহী এম.সি কলেজ ছাত্রলীগ দীর্ঘ আট বছর থেকেই কমিটিবিহীন।এমসি কলেজ ছাত্রলীগের সর্বশেষ সম্মেলন হয়েছিল ২০০৩ সালে। তাজিম উদ্দিনকে সভাপতি ও পঙ্কজ পুরকায়স্থকে সাধারন সম্পাদক করে দুই বছরের জন্য কমিটি গঠন করা হয়েছিল। ২০১০ সালে অভ্যন্তরীণ দ্বন্ধে গণিত বিভাগের ছাত্র উদয়েন্দু সিংহ পলাশ খুন হওয়ার পর কমিটি বাতিল করা হয়।
২০১০ সালে কমিটি বিলুপ্তির পর এখন পর্যন্ত কোন কমিটি গঠিত হয় নি। এই সময়ের মধ্যে সিলেট জেলা মহানগর ছাত্রলীগের দুই-তিন টি কমিটি ঘোষনা হয়েছে।

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক এক ছাত্রলীগ কর্মী জানান- দীর্ঘ দিন ছাত্রলীগের কমিটি না হওয়ায় ক্যম্পাসে ছাত্ররাজনীতি ধীরে ধীরে স্থিমিত হয়ে পড়ছে। ৮ বছর থেকে কমিটি গঠিত হবে না সেটা ছাত্রলীগের গঠনতন্ত্র বিরুধী। এ ব্যাপারে কেন্দ্র ছাত্রলীগের দৃষ্টি দেয়া উচিত। ছাত্ররাজনীতি চাঙ্গা করতে শীর্ঘই কমিটি দেয়া উচিত।

অপর দিকে বিভিন্ন সূত্রে জানা যায়, এম.সি কলেজে ছাত্রলীগের অভ্যন্তরীণ কোন্দল চরম পর্যায়ে। অভ্যন্তরীণ কোন্দলে গত দু-তিন বছর থেকে প্রতিনিয়ত সংঘর্ষ হচ্ছে এমন কি তিন চার জন খুনও হয়েছে। এই পরিস্থিতিতে কমিটি ঘোষনা বড় ধরনের সংঘাতের কারন হতে পারে। এ জন্য কমিটি গঠিত হচ্ছে না।

সিলেটের অন্যতম আরেক বিদ্যাপীঠ মদনমোহন কলেজে ছাত্রলীগের কমিটি দেয়ায় কিছুটা আশার আলো জেগেছে এমসি কলেজ ছাত্রলীগ নেতাকর্মীদের মধ্যে। এম.সি কলেজের সকল গ্রুপের নেতাকর্মীরা চায় কমিটি গঠিত হোক। ছাত্রলীগের মধ্যে আবার সতেজতা ফিরে আসুক।

কমিটি গঠিত হলে কারা নেতৃত্বে আসবেন এ ব্যাপারে কেউই মুখ খুলছেন না। নেতাকর্মীদের সাথে কথা বলে জানা যায় কমিটিতে কারা আসবেন তা একমাত্র সিলেট জেলা আ. লীগের ক্রীড়া বিষয়ক সম্পাদক রনজিত সরকার ও কাউন্সিলর আজাদুর রহমান ছাড়া কেউ তেমন কিছু বলতে পারবে না।

Share This Post

Post Comment

%d bloggers like this: