পাকিস্তানে স্বামীর হাতে খুন হলেন নারী সাংবাদিক

বার্তা আন্তঃ ডেস্কঃ পাকিস্তানে স্বামীর হাতে খুন হলেন দেশটির রাষ্ট্রীয় টেলিভিশনের নারী সাংবাদিক। শাহিনা শাহিন নামের ওই সাংবাদিকের মাথায় গুলি করে হত্যা করা হয়েছে। পুলিশ ধারণা করছে, এটি একটি ‘অনার কিলিং’ বা কথিত সম্মান রক্ষার্থে হত্যা। নিহতের পরিবারও পুলিশের কাছে করা অভিযোগে একে অনার কিলিং দাবি করেছে। শাহিনার স্বামীকে ধরতে সর্বোচ্চ চেষ্টা চলছে বলে জানিয়েছে পাকিস্তান পুলিশ।পাকিস্তান সাংবাদিকদের জন্য সবথেকে ভয়ংকর রাষ্ট্রগুলোর মধ্যে একটি। ১৯৯২ সালের পর থেকে দেশটিতে অন্তত ৬১ জন সাংবাদিক হত্যার শিকার হয়েছেন। গণমাধ্যমের স্বাধীনতায়ও দেশটি শেষের দিকে। সাংবাদিক শাহিনা হত্যাকাণ্ডটির তদন্ত করছেন তদন্তকারী কর্মকর্তা সিরাজ আহমাদ। তিনি জানান, আমরা অপরাধীদের ধরতে সব ধরণের চেষ্টা চালাচ্ছি।

শাহিন পাকিস্তানের রাষ্ট্রীয় টেলিভিশনে একটি টকশো এর সঞ্চালক ছিলেন। এছাড়া একটি ম্যাগাজিনের সম্পাদকও ছিলেন তিনি। তাকে তার নিজ বাড়িতে গুলি করে হত্যা করা হয়েছে। ঘটনার পর তার স্বামী তাকে হাসপাতালে রেখে পালিয়ে যান। গত বছরের নভেম্বর মাসেও পাকিস্তানের লাহোরে এক ব্যাক্তি তার সাংবাদিক স্ত্রীকে হত্যা করে। নারীদের নিরাপত্তা ও মর্যাদা সূচকে বিশ্বের সবথেকে ভয়াবহ দেশগুলোর একটি পাকিস্তান। আল-জাজিরা জানিয়েছে, নারীদের জন্য সবথেকে ঝুঁকিপূর্ন দেশের তালিকায় ৪ নম্বরেই রয়েছে দেশটি। পাকিস্তানের পূর্বে রয়েছে সিরিয়া, আফগানিস্তান ও ইয়েমেন ভিত্তিক গণমাধ্যম আল-জাজিরা।

Share This Post

Post Comment

%d bloggers like this: