তুরাগ নদের অবৈধ ট্রাক স্ট্যান্ড উচ্ছেদ

বার্তা ডেস্কঃ  তুরাগ নদের তীরভূমি  দখল করে গড়ে তোলা অবৈধ ট্রাক স্ট্যান্ডের ট্রাক দিয়েই দখলকৃত জায়গার অবর্জনা সরিয়েছে দখলে নিয়েছে বাংলাদেশ অভ্যন্তরীণ নৌ-পরিবহন কর্তৃপক্ষ (বিআইডব্লিউটিএ)।২৪ জুলাই শুক্রবার বিকালে তুরাগ নদের মিরপুর বেড়িবাঁধ এলাকার বড় বাজারে নদের দখলমুক্তকরণ নিয়মিত অভিযানের অংশ হিসেবে এ কার্যক্রম চালায় সংস্থাটি।
বিআইডব্লিউটিএ’র যুগ্ম পরিচালক (ঢাকা নদীবন্দর) এ কে এম আরিফ উদ্দিন অভিযানটি পরিচালনা করেন। তিনি জানান, নদী উদ্ধারে বিআইব্লিউটিএ গত বছরের মাঝামাঝি সময়ে মিরপুর বড় বাজার এলাকায় অভিযান পরিচালনা করে। সে সময় তীরভূমি দখল করে গড়ে তোলা বিপুল পরিমাণ অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদ করা হয়। আরিফ উদ্দিন বলেন, উচ্ছেদের পর আমরা সীমানা পিলার স্থাপন করেছি। এর মধ্যে স্থানীয় কিছু দুর্বৃত্ত অবর্জনা ফেলে নদীর এ অংশটি দখল করে ট্রাক স্ট্যান্ড বানিয়ে ফেলে। এখানে প্রায় ৫০টির মতো ট্রাক ছিল। দখল করা অংশের আবর্জনা ভেকু দিয়ে তুলে এসব ট্রাকে করেই আমরা অপসারণ করেছি। জায়গাটি আমরা দখলমুক্ত করেছি। তিনি বলেন, উদ্ধারকৃত স্থানে বৃক্ষরোপণ করা হবে। ঢাকা নদীবন্দরের কোনো জায়গা বেদখল থাকবে না। নদীকে তার স্বাভাবিক গতি প্রবাহ ফিরিয়ে দিতে বিআই্উব্লিটিএ সম্পূর্ণ আপসহীন বলে জানিয়েছেন ঢাকা নদীবন্দরের এই কর্মকর্তা।
গত বছর ২৯ জানুয়ারি ঢাকা নদীবন্দরের বুড়িগঙ্গা নদীর খোলামুড়া ঘাট থেকে অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদে অভিযানে নামে বিআইব্লিউটিএ। বছরব্যাপী অভিযানে নানা বাধার মুখেও নদীকে দখলমুক্ত করার কাজের নেতৃত্ব দিয়ে যাচ্ছেন বিআইডব্লিউটিএ’র এ কর্মকর্তা। বর্তমানে নদীর তীরে স্থায়ী সীমানা খুঁটি স্থাপন, বৃক্ষরোপণ ও নদীর যেসব স্থানে বর্জ্য রয়েছে তা অপসারণের কাজ চলছে। এরপর নদীর তীরে ওয়াকওয়ে, সবুজায়ন, লাইটিংসহ নানা উন্নয়নমূলক কাজ হাতে নিয়েছে নৌ-পরিবহন মন্ত্রণালয়। সংস্থাটির মতে, এ উন্নয়ন কাজ শেষ হলে ঢাকা নদীবন্দরের বুড়িগঙ্গা, তুরাগ, বালু নদী ও শীতলক্ষ্যা হয়ে উঠবে দেশের অন্যতম বিনোদন কেন্দ্র।

Share This Post

Post Comment

%d bloggers like this: