‘ফেসঅ্যাপ’ নিয়ে এফবিআই’র আশঙ্কা প্রকাশ

বার্তা ডেস্কঃ  কিছুদিন আগেই খুব ভাইরাল হয়েছিল ফটো এডিটিং অ্যাপ্লিকেশন ‘ফেসঅ্যাপ’। ফেসবুক জুড়ে সবাই নিজেদের বয়স বাড়িয়ে বা কমিয়ে দেখছিলেন, কেমন লাগে দেখতে। এবার সেই অ্যাপ সম্পর্কে ভয়ঙ্কর তথ্য সামনে এল। রীতিমত আশঙ্কা প্রকাশ করল মার্কিন তদন্তকারী সংস্থা এফবিআই।

এফবিআই-এর গোয়েন্দাদের দাবি এই অ্যাপটির ডেভ‌েলপার রাশিয়ার এক সংস্থা। আর এই অ্যাপের মাধ্যমে প্রয়োজনে সংস্থার কাছ থেকে প্রয়োজনে তথ্য সংগ্রহ করতে পারে রাশিয়ার সরকার, এমনটাই চুক্তি রয়েছে। ফলে এই অ্যাপ থেকে আমেরিকার নিরাপত্তার ক্ষেত্রে আশঙ্কা থেকে যাচ্ছে বলে মনে করছেন গোয়েন্দারা।।

ফেস অ্যাপ ২০১৭ সালে তৈরি হয়। কিন্তু চলতি বছর সেটি ভাইরাল হয়ে যায়। প্রচুর অ্যান্ড্রয়েড ও আইওএস ব্যবহারকারী এই অ্যাপ ডাউনলোড করেন। এই অ্যাপের সাহায্যে সহজেই, কম বয়সের ছবিকে বেশি বয়সের, পুরুষকে মহিলা বা মহিলাকে পুরুষের মতো করে এডিট করে ফেলা যায়। সেই সব ছবি সোশ্যাল মিডিয়ায় প্রচুর শেয়ারও হয়। এমনকি অনেক সেলেব্রিটিও এই অ্যাপ্লিকেশনে নিজের ছবি দেন।

ফেসঅ্যাপ ভাইরাল হওয়ার পরই বেশ কিছু ইউজার নিরাপত্তা সংক্রান্ত প্রশ্নগুলি তুলছিলেন। তারপরই মার্কিন সাংসদ সংখ্যালঘু নেতা চাক শুমার মার্কিন তদন্তকারী সংস্থা ফেডেরাল ব্যুরো অব ইনভেস্টিগেশন (এফবিআই)-কে বিষয়টি তদন্ত করতে বলেন। সম্প্রতি এফবিআই সেই তদন্তের রিপোর্ট দিয়েছে।

এফবিআই রিপোর্টে ফেসঅ্যাপকে ‘পোটেনশিয়াল কাউন্টারইন্টেলিজেন্স থ্রেট’ বলে উল্লেখ করেছে। শুধু এই অ্যাপটিই নয় রাশিয়ায় তৈরি যে কোনও অ্যাপের ক্ষেত্রেই নিরাপত্তার ঝুঁকি থেকে যাচ্ছে। এমনটাই উল্লেখ করা হয়েছে এফবিআই-এর রিপোর্টে। এর আগে যখন ফেসঅ্যাপে তথ্য নিরাপত্তা নিয়ে প্রশ্ন ওঠে, তখন অ্যাপ প্রস্তুতকারকদের তরফে দাবি করা হয়, ব্যবহারকারীদের তথ্য (ডেটা) রাশিয়ায় ট্রান্সফার করা হয় না। যদিও এই অ্যাপের রিসার্চ অ্যান্ড ডেভেপলমেন্ট টিম রাশিয়াতেই রয়েছে।

Share This Post

Post Comment

%d bloggers like this: