মালিককেই খেয়ে ফেলল তার পালিত ১৮ কুকুর

বার্তা আন্তঃ ডেস্কঃ  বাড়িতে ১৮টি পোষা কুকুরের সঙ্গে থাকতেন ভদ্রলোক। পরিবারে আর কেউ ছিল না। ফ্রেডি ম্যাকের বয়স হয়েছিল ৫৭। সবকটা কুকুরই খুব হিংস্র ছিল। কুকুরদের ভয়ে বাড়িতে আসতেন না কেউ। তবে মে মাস থেকে নিখোঁজ ফ্রেডি ম্যাক। টেক্সাসের ভেনাসে নিজের বাড়িতেই থাকতেন তিনি। তাঁর কোনও খোঁজ না পেয়ে বাড়িতে গিয়েছিলেন তাঁর পরিচিতরা। তখন গোটা বাড়িটা ঘিরে রেখেছিল কুকুরগুলো। কাউকে ভিতরে ডুকতে দেয়নি। তখন তাঁদের সন্দেহ হয়। তাঁরা পুলিশে খবর দেন।

পুলিশকেও বাড়িতে ঢুকতে দেয় না কুকুরগুলি। ম্যাকের বাড়িতে ঢুকতে গেলেই বাধা দিচ্ছিল কুকুরগুলো। তাই প্রথমে ড্রোন উড়িয়ে ভিতরের তল্লাশি চালানো হচ্ছিল। ড্রোন নামিয়ে দেখা যায় বাড়ির কয়েকটি জায়গায় পড়ে রয়েছে চেবানো, ভাঙাচোরা হাড়। ব্যাপারটা মোটামুটি আন্দাজ করে কুকুরদের প্রথমে বাড়ি থেকে সরানো হয়। পরে দেখা যায় কুকুরদের মলে রয়েছে মানুষের চুল, জামার ছেঁড়া অংশ,” কুকুরের মল আর হাড়ের টুকরো ফরেন্সিক ল্যাবোরেটরিতে পাঠানো হয়েছে। তদন্তকারীরা জানান ম্যাককে যে তাঁর কুকুররাই খেয়েছে সেটা বিশ্বাস করতে তাঁদের প্রথমে অসুবিধা হয়েছিল। তবে তদন্ত করে এখন তাঁরা নিশ্চিত যে কুকুরগুলোই খেয়েছে ম্যাককে।

Share This Post

Post Comment

%d bloggers like this: